Check Now

বাজেটের মধ্যে সেরা স্মার্টওয়াচ ২০২০ Realme Classic Watch স্মাটওয়াচ নামটা শুনলেই অন্যরকম একটা ভাব আছে


স্মাটওয়াচ নামটা শুনলেই অন্যরকম একটা ভাব আছে। বাজারে প্রচুর স্মার্টওয়াচ রয়েছে। যার বেশিরভাগ নন ব্রেন্ডের চাইনিজ। এগুলো দামও তেমন একটা হয় না এছাড়াও কোয়ালিটি একে বারে যাচ্ছে তাই।













































x

বর্তমানে বাজারের সেরা কিছু ব্রেন্ড তাদের তৈরি স্মার্টওয়াচ তৈরি করা আছে।এদের কাছে ভারো মান এবং কোয়ালিটি আশা করা যায়।তাই স্মার্টওয়াচের বাজারে বর্তমানে একটু প্রতিদ্বন্দি বেড়েছে।




realme smartwatch Photo
Realme smartwatch




বিশ্ববিখ্যাত নামি দামি কো
ম্পানি স্যামসাং থেকে শুরু করে সনি সবাই এখন স্মার্টওয়াচের বাজার দখল করার চেষ্টায় রয়েছে।আর এর প্রধান কারন হল স্মার্টওয়াচের চাহিদা।

২০২০ সালে এসে বিশ্ব অর্থনিতিতে যেমন মন্দা দেখা দিয়েছে।ঠিক তেমনি একটা প্রভাব লক্ষ করা গেল টেক গ্যাজেটগুলোর মধ্যে।তাই তারা সবাই ঘুরে আসতে চেষ্টায় রয়েছে।

তবে এসবের মধ্যে অনেক খানি এগিযে রয়েছে স্মার্টওয়াচের বাজার। বর্তমানে প্রচুর পরিমানে স্মার্টওয়াচ বিক্রি হচ্ছে।আর তাই বড় বড় কোম্পানি বাজা দখলের চেষ্টায় রয়েছে।



স্মার্টওয়াচের বাজর নিয়ে যারা একটু টুকিটাকি জানেন তারা জানেন স্মার্টওয়াচ মানুষের মাঝে কতটুকু আগ্রহ সৃষ্টি করতে পেরেছে।তাই স্মার্টওয়াচ নিয়ে রিয়েলমির এই চমক।

তাই তাদের সাথে পাল্লা দিতে নিয়ে এল রিয়েলমি স্মার্টওয়াচ।স্মার্টওয়াচ এর বাজারে এবার নতুন ধামাকা নিয়ে এল রিয়েলমি।বর্তমানে খুব সাম্প্রতিক সময়ে রিয়েলমি তাদের একটা স্মার্টওয়াচ চেড়েছেন।

 

 



Realme Classic Smartwatch review in bangla | সেরা সস্তা স্মার্টওয়াচ 2020 | Best cheap smartwatch in Bangladesh

 

 

Realme স্মাটওয়াচটি দেখতে কেমন?



এই স্মার্টওয়াচটি অবশ্যই ভালো লাগবে যদি দেখেন।


১. 

এর প্যাকেজিং টা অসাধারন। দারুন একটা বক্সে এটি করা হয়েছে।যার ফলে এটি দেখতে আরও একটু আকর্ষনীয় লাগে। এই ওয়াচটির প্যাকেজিং আপনাকে মনে করিয়ে দিবে এপেল ওয়াচের কথা।

বাজারে যে সমস্ত চাইনিজ স্মার্টওয়াচ পাওয়া যায় সেগুলো থেকে অনেক ভালো এটি।তাই এটি খুব সুরক্ষিত থাকবে।সত্যি এটা দারুন পছন্দ হবে।


২.

এল লুকিংটা অনেক জোস।ছোট বড় প্রায় সব হাতে ধারুন মানাবে এটি।খুব চমৎকার দেখায় এটি।তাই এটার লুক নিয়ে কারো কোন খুত থাকার কথা না।এছাড়াও এর ম্যাটেরিয়েলগুলো খুবই চমৎকার মানের।তাই এটা ভালো মানের বলাই যায়।


৩.

এর ওজন মাত্র ৩১ গ্রাম।তাই হাতে নিয়ে খুব আরাম পাওয়া যায়।এটি পড়ে আপনার কখনোই মনে হবে না হাতে একটা জিনিস নিয়ে ঘুরছেন।তাই এটিও আপন্কে মুগ্ধ করবে।


৪.

এতে ব্যবহার করা হয়েছে ১.৪ ইন্সির ডিসপ্লে। যেটি অনেক সার্প পাওয়া যায়।বিমেষ করে যখন ইডোর থাকবেন তখন এটার সার্পনেস আপন্র ভালোর লাগবে।


৫. এতে রয়েছে ১০৭ mAh এর ব্যাটারি যেটি সত্যিই ভালো।এর ব্যাটারি ব্যাকআপ ২০ দিন পেয়ে যাবেন। আবার সব ধরনের নোটিফিকেশন আসতে থাকলে এবং Heart rate Sensor এক্টিভ থাকলে ৭ দিনের মত ব্যাটারি বেকআপ পেয়ে যাবেন।যেটা আসলেই অনেক ভালো একটা ব্যাপার।



Realme স্মাটওয়াচটি দিয়ে কি কি করতে পারবেন?



এটিতে অনেক দরকারি এবং ভালো মানের কিছু ফিচার আছে। যেগুলো দেখে আপনি আশ্চর্য হতে পারেন।হ্যাঁ সত্যিই খুব ভালো মানের। চলুন যেনে নিই কি করা যায় এি স্মার্টওয়াচ দিয়ে।


১.

যেহেতু এটি একটি স্মার্টওয়াচ এটি আপনাকে সময় দেখতে সাহায্যে করবে।আপনার সময়ের চাহিদা পূরন করবে যেখানে সেখানে।


২.

এতে Hard rate sensor নামের একটি অপশন যেটি দ্বারা আপনি আপনার হার্ট রেট জানতে পারবেন।তবে একটু চার্য বেশি কাটবে এর ফলে।তবে আপনি চাইলে ডিপল্ট মোডে রাখতে পারেন যেটি পাঁছ মিনিট পর পর হার্ট রেট নির্নয় করবে।



৩.

এটি দ্বারা আপনি আপনার রক্তের অক্সিজেন লেভেল জানতে পারেন। যার সাহায্যে আপনি আপনার স্বাস্থ্য সম্পর্কে ভালোই জানতে পারবে।আর এইকারনেই এই ওযাচটিকে সত্যিকারের স্মার্টওযাচ বলা যেতে পারে।



৪.

এটি দ্বারা আপনি আপনার ফোনের ক্যামেরা নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন। যার ফলে হবে কি আপনি দূরে মোবাইল সেট করে আপনার হাতের ঘরিতে ক্লিক করেই ছবি তুলতে পারেন।এই পিচারটাও অসাধারন।



৫.

এছাড়াও এটি দ্বারা আপরি আপনার মোবাইলের মিউজিক প্লেয়ার এবয় কল লিস্ট তচেক করতে পারেন বা নোটিপাইজেন পেয়ে যাবেন নিয়মিত।



৬.

এতে রয়েছে Sleep Data নামক একটি অফশন যার ফলে আপনি জানতে পারেন রাতে কতক্ষণ ঘুমালেন, কত সময় হালকা ঘুমালেন, ঘুম কেমন হল সম্পূর্ন বিস্তারিত।



৭.

এটি দ্বারা আপনার ফোন আনলক করতে পারেন।একটু বুঝিয়ে বলি।আপনি চাইলে আপনার ফোনটা যখন হাতের কাছে থাকবে তখন আনলক করে রাখতে পারেন।আবার মোবাইল যখন দূরে থাকবে তখন অটো লক হয়ে যাবে।যেটা অনেক কুল একটা পিচার। 



৮.

এতে আরেকটা ভালো পিচার রয়েছে।আপনার কানেক্টিভিটি এরিয়ার ভিতর যখন আপনার ফোনটি হারিয়ে যাবে তখন এই স্মার্টওযাচের মাধ্যমে খুব সহজে খুজে পেয়ে যাবেন।



৯.

এটার সবচেয়ে বড় যে পিচারটা হল সেটি হল রিমাইন্ডার। হ্যাঁ আপনার যখন পানি খাওয়ার প্রয়োজন আপনাকে পানি খেতে বলবে।এছাড়াও আপনি যদি একটি জায়গায় বসে থাকেন নড়-চড় না করেন, তবে এটি আপনাকে বলবে একটু হাটাচলা করতে।আসলেই এই পিচারটা অসাধারন ছিল।



১০. 

এটিতে অসাধারন একটি চার্চার রয়েছে।এটি অনেক ধারুন৷ যাস্ট স্মার্টওযাচের পিছনে লাগান আর অটে চোম্বকিয় কানেক্টর করে পেলবে।এটাও অনেক কুল 



১১. 

এটার টাষ ল্যাটেন্সি অসাধারন। সাধারন যে নন ব্রেন্ডের চাইনিজ প্রোডাক্ট বা স্মার্টওয়াচ রয়েছে সেগুলোর টাচ ল্যাটেন্সি খুব বাজে হয়।তবে এটির টাস নিয়ে কোন রকমের সমস্যা থাকার কথা বলে মনে করা যায় না।



১২.

এতে রয়েছে vivrate Alert system নামক বাটন।যেটি ব্যবহার করে আপনি আপনার ফোন কল আসলে আপনার ওযাচে ভাইব্রেট হতে থাকবে।আবার যখন আপনার মোবাইলে এলার্ম বাজবে তখন এটা ভাইব্রেট করে আপনাকে বলে দিবে।



মোবইলের সাথে স্মাটওয়াচটি কানেক্ট করব কিভাবে?



এটি কানেক্ট করার জন্য আপনাকে গুগল প্লে স্টোর থেকে অ্যাপ ইনস্টল করতে হবে অ্যাপটির নাম হল Realme Link। অ্যাপটির ইন্টারপেস খুব ভালো মানের। চাইলে ওয়াচের সমস্ত ডাটা এক্টিভিটি এই অ্যাপ রেকর্ড করে রাখবে।যেটি আপনি যখন তখন দেখতে পারেন।



এখন দেখে নেওয়া যাক রিয়েলমির স্মার্টওয়াচ টির

কিছু খারাপ দিক।আপনারাতো ভালোই জানেন কোন জিনিসই ভালো হতে পারে না তার কিছু খারাপ দিক রয়েছে।



Realme স্মার্টওয়াচের খারাপ দিক কোনগুলো?



১. 

প্রথমতো এর ডিসপ্লে সাইজ অনেক ছোট। আশা করা যেত আরও একটু বড় হওয়ার।তাই এখানে একটু হতাশ হতে পারেন।



২.

এটা পুরোপুরি ওয়াটারপ্রুভ না। তার মানে এটি পানিতে ভিজানো যাবে না।তবে একটু হালকা পাতলা পানি পড়লে কিছু হবে না।আপনি হাত দোয়া করতে পারেন তবে গোসল করা একেবকরেই যাবে না এটা পড়ে।



৩.

এই স্মার্টওয়াচটি ডে লাইে ডিসপ্লে একটু খারাপ লাগবে।বিশেষ করে যখন বাইরে রোদে থাকবেন এটি দেখার জন্য একটু কষ্ট হতে পারে।এখানেও একটু হতাশ হতে পারেন।



৪.

যারা আইফোন ব্যবহার করেন তাদের জন্য দুঃসংবাদ। কারন এটি আইফোনের সাথে 

কানেক্ট করার জন্য কোন অ্যাপ বানায় নি।তবে কিছুদিন পর চলে আসবে বলা যায়।



Realme স্মার্টওয়াচের দাম কত?



এই স্মার্টওয়াচটির দাম রিয়েলমি রেখেছে ৫,০০০ টাকা ৳। যেটি একটু বেশি মনে হয়েছে।তবে ভারতে এই স্মার্টওয়াচের মূল্য রেখেছে ৪৩০০ রুপি ₹। সে হিসেবে বলা যায় দামটা ঠিকই আছে।



ওভারঅল স্মার্টওয়াচটি ভালোই ছিল।তাই যারা স্মার্টওয়াচ ভালোবাসেন তাদের জন্য এটি হতে পারে সেরা।



Realme স্মার্টওয়াচটি কোথায় পাওয়া যাবে?



দেশের সেরা সেরা অনলাইন সফ যেমন - দারাজ,ইভ্যালি,পিসি হাউজ গুলোতে অনায়সে পাওয়া যাবে।এছাড়াও বিভিন্ন দোকানেও পেতে পারেন।তাই মনে হয় না এর পাওয়া যাবে না এমন কোন সমস্যা হবে।



Post a Comment

অপেক্ষাকৃত নতুন পুরনো